মঙ্গলবার, ১১ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং ২৭শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

দুই সাপের লড়াইয়ের পেছনেও ‘সাপ’

news-image

একবার ভাবুন, আপনি ক্লান্ত হয়ে বিছানায় ঘুমাতে যাচ্ছেন। ঠিক তখনই দু’টি সাপ সিলিং ফুঁড়ে আপনার সামনে এসে ধপাস করে পড়ল। দু’টি সাপ মারপিট করতে করতে ঘরের মধ্যে লম্ফঝম্প শুরু করল। সেই দুঃস্বপ্নই সত্যি হলো অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনের একটি বাড়িতে। সাপের সেই মুহূর্তের ভিডিও ফেসবুক লাইভ করার পর সেটা এখন ভাইরাল।

সেই ভিডিও দেখে আপনার মনে হতে পারে, দুই সাপের ‘শঙ্খ’ লেগেছে। কিন্তু না, এই ভিডিওতে যে পাইথন দু’টিকে দেখা যাচ্ছে, তারা কিন্তু যৌনসংসর্গে লিপ্ত নয়।

সর্প বিশেষজ্ঞ লানা ফিল্ডের কথা বিশ্বাস করতে হলে, এই দু’টি সাপ নাকি কোনও সর্পিণীর জন্য নিজেদের মধ্যে লড়াই করছে। সেই সর্পিণী সেই এলাকাতেই ছিল। তার উপর কার অধিকার থাকবে, সেটা নিয়েই দুই সাপের কুস্তি চলছে।

সাপেরা যখনই সর্পিণীর গন্ধ পায়, তখনই নাকি এভাবে মারপিট শুরু করে দেয়। ফিল্ডের মতে, এরা বাড়িটির ফলস সিলিং-এর উপর হাওয়া চলাচলের পাইপের মধ্যে লড়াই করছিল। সেখান থেকেই হঠাৎ সিলিং ভেঙে ঘরের মেঝেতে পড়ে যায়।

পুরো ঘটনার ভিডিও করতে করতে ফিল্ড বলছেন, সাপ দু’টি একটু দুষ্টু। সেই ‘দুষ্টুমি’ ক্যামেরাবন্দি করার জন্যও যে সাহস লাগে তা বলাই বাহুল্য।

এক দর্শক ফেসবুকে প্রশ্ন করেন, দু’টি সাপকে কি ব্যক্তিগত জায়গা ছেড়ে দেওয়া উচিত নয়? তখন ফিল্ড উত্তর দেন, এই ‘দুষ্টুমি’কে অনেক সময়ই যৌনলীলায় লিপ্ত বলে অনেকে ভুল করেন। আর তাছাড়া তখন যেভাবে দু’জনে নিজেদের অধিকারের জন্য লড়াই করছে, তাতে কে তাদের ছবি তুলল, তা নিয়ে সাপ দু’টি মোটেই চিন্তা করেনি।